আবার ইউরোপে সবজি রপ্তানি

আবার ইউরোপে সবজি রপ্তানি

করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় এক বছর বন্ধ ছিলো। এখন আবার যশোর থেকে সবজি রপ্তানি শুরু হয়েছে। পাঠানো হবে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে। যশোরের সবজি রপ্তানি হচ্ছে সিঙ্গাপুরেও।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, চলতি শীত মৌসুমে সিঙ্গাপুর ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে প্রায় ৫০০ টন সবজি। নিরাপদ সবজি উৎপাদনের ফলে বিশ্ব বাজারে এর চাহিদা বাড়ছে বলে জানিয়েছে কৃষি অধিদপ্তর।

২০১৬ সালে যশোর থেকে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রথম সবজি রপ্তানি শুরু হয়। সে লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব নিরাপদ সবজি উৎপাদন শুরু করেন কৃষকেরা। পরিমিত সার ও কীটনাশক প্রয়োগের মাধ্যমে উৎপাদিত সবজি সংরক্ষণ করা হয় বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে। কিন্তু গেলো বছর করোনা মহামারি শুরু হলে থমকে যায় রপ্তানি কার্যক্রম।

করোনার কারণে প্রায় এক বছর বন্ধ থাকায় সবজি রপ্তানিকারকরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। এখন আবারও শুরু হয়েছে রপ্তানি। এরইমধ্যে সিঙ্গাপুর ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানো হচ্ছে ফুলকপি, বাঁধাকপি, শিম, বেগুন, গাজরসহ বিভিন্ন সবজি।

জৈব সার ব্যবহার করে নিরাপদ ফসল উৎপাদন বাড়ানো গেলে বিশ্ব বাজারে দেশের সবজির চাহিদা আরও বাড়বে- জানিয়েছেন রপ্তানিকারকেরা। রপ্তানির কারণে চাষিরা ভালো দাম পেয়ে লাভবান হচ্ছেন বলে জানান কৃষি কর্মকর্তা।

চলতি মৌসুমে যশোরে ১০০ একর জমিতে নিরাপদ সবজির চাষ হয়েছে। ধীরে ধীরে জেলার সব আবাদি জমি আর কৃষককে এর আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

#তমহ/বিবি/১৩-০১-২০২১

ক্যাটেগরী: কৃষি

ট্যাগ: কৃষি

কৃষি ডেস্ক, বিবি বুধ, জানুয়ারী ১৩, ২০২১ ৬:২৭ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)