বার্সাকে বিদায়, দায় কার?

বার্সাকে বিদায়, দায় কার?

থাকতে চান লিওনেল মেসি। ছাড়তে চায় না বার্সেলোনাও। তবু্ও বন্ধন ছিন্ন হচ্ছে। ২১ বছরের মায়া কাটিয়ে অন্য ক্লাবে যেতে হচ্ছে লিওনেল মেসিকে। এর দায় আসলে কার?

বাংলাদেশে তখন মধ্যরাত। সেই সময় তথা ৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে কাতালান ক্লাবটি আনুষ্ঠানিক ঘোষণায় জানায়, শেষ হচ্ছে মেসির বার্সা অধ্যায়। ক্লাব ওয়েবসাইটে দেয়া বিবৃতিতে চুক্তি নবায়ন না হওয়ার কারণ হিসেবে লা লিগার আর্থিক ও কাঠামোগত বাধাকে দায়ী করা হয়েছে।

বার্সেলোনা বলছে, মেসির সাথে সমঝোতায় পৌঁছালেও লিগ কর্তৃপক্ষের বেঁধে দেয়া বেতন কাঠামো বাধা হয়ে দাড়িয়েছে। দীর্ঘদিন ধরেই অর্থ সংকটে রয়েছে কাতালান ক্লাবটি। এ পরিস্থিতিতে সব শর্ত মেনে মেসিকে ধরে রাখা অসম্ভব ছিল বার্সেলোনার।

চরম নাটকীয়তা আর ভক্তদের আশা-নিরাশার দোলাচলের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বার্সেলোনা ছাড়ছেন আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা লিওনেল মেসি। এ যেনো একটি অধ্যায়ের অবসান হলো। এতদিন সমার্থক হয়ে থাকা মেসি আর বার্সেলোনা এই শব্দযুগল ছিন্ন হলো। মেরুন-নীল আর হলুদের মায়ায় মেশানো জার্সিটি চিরতরে খুলে ফেললেন ফুটবল জাদুকর।

সাজানো সংসার হঠাৎই অগোছালো। ঠিক যখন মনে হচ্ছিল সব সংকট সমাধানের পথে, তখনই পরিস্থিতি ঘুরে গেলো ১৮০ ডিগ্রি। বার্সেলোনার সাথে পাঁচ বছরের চুক্তি নবায়ন করছেন, অর্ধেক বেতনে থাকতে রাজি মেসি; বেশ কিছুদিন ধরেই এমন নানা খবর ঘুরছিলো গণমাধ্যমে।

ছুটি কাটিয়ে দিন দুয়েক আগে বার্সেলোনায় ফেরেন মেসিও। বিশ্বজুড়ে কোটি ভক্ত অপেক্ষায় ছিলেন বৃহস্পতিবার বার্সা-মেসি নতুন চুক্তি হবে, আসবে আনুষ্ঠানিক ঘোষণাও। তবে, মিলন নয়, ঘোষণা এলো বিচ্ছেদের।

গত বছর, বার্সেলোনা ছাড়ার ইচ্ছে নিজেই জানিয়েছিলেন মেসি। তখনকার ক্লাব সভাপতি বার্তোমেউর সঙ্গে সম্পর্কের টানাপড়েন আর ক্লাবের ভবিষ্যত পরিকল্পনায় হতাশ ছিলেন আর্জেন্টাইন জাদুকর। তবে, চরম নাটকীয়তার পর, শেষ পর্যন্ত আরও এক বছর থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। যদিও, কার্যত ১ জুলাই থেকে ফ্রি ট্রান্সফার হিসেবে ছিলেন মেসি।

বার্সেলোনায় শেষ দেখে ফেলা মেসি, এখন নতুন গন্তব্যের সন্ধানে। তাকে পেতে দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ম্যান সিটি, পিএসজি, ইন্টার মিলান, এমনকি মেজর সকার লিগের ইন্টার মিয়ামিও। তবে আকাশচুম্বি বেতন দিয়ে মেসিকে নেয়ার সম্ভাবনা কম ইংলিশ ক্লাব ম্যান সিটির।

মেসিকে পাওয়ার দৌড়ে আপাতত এগিয়ে পিএসজি। অর্থের ঝনঝনানিতে নামিদামি ফুটবলার কেনার সামর্থ্য রাখে ফ্রেঞ্চ ক্লাবটি। দিন কয়েক আগেই বন্ধু নেইমার আর তার পিএসজি সতীর্থদের নিয়ে একটি ছবিও ফ্রেমবন্দি করেছিলেন মেসি। সেখানেই কি কিছু ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন? সেই ইঙ্গিত সত্যি হবে কিনা, তার জন্যে খুব বেশি দিন অপেক্ষা করতে হবে না- এটা নিশ্চিত করেই বলা যায়।

#তমহ/বিবি/০৬-০৮-২০২১

ক্যাটেগরী: খেলা

ট্যাগ: খেলা

খেলা ডেস্ক, বিবি শুক্র, আগষ্ট ৬, ২০২১ ২:৩৫ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)