করোনার লকডাউনে বিপদে মজুর...

করোনার লকডাউনে বিপদে মজুর...

করোনাভাইরাসের কারণে স্থবির জনজীবন। লকডাউনে বিপদে পড়েছে বিভিন্ন খাতের মজুররা। আয় কমেছে ৬৮ শতাংশ শ্রমিকের। সঞ্চয় ভেঙে ও ধারদেনা করে সংসার চালাচ্ছেন তারা। এ অবস্থায় সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতা বাড়ানোর পরামর্শ বিশ্লেষকদের।

স্ট্যান্ডে স্থবির সারি সারি বাস। অলস সময় কাটছে শ্রমিকের। নেই দৈনিক আয়। অথচ তা দিয়েই চলে ৭০ লাখ পরিবার। গবেষণা বলছে, করোনার এক বছরে শুধু পরিবহন খাতে আয় কমেছে ৮০ শতাংশের।

এ অবস্থায় শ্রমিকেরা বলছেন, সরকারি অর্থ সহায়তা বা প্রণোদনা না পেলে তারা টিকে থাকতে পারবেন না।

সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম জানান, করোনায় কাজ হারিয়েছেন দুই কোটির বেশি মানুষ। দারিদ্রসীমা বেড়ে ৩৩ শতাংশ। ৬৮ শতাংশ শ্রমিকের কমেছে আয়। এ পরিস্থিতিতে সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় অর্থ ও খাদ্য সহায়তায় জোর দিচ্ছেন এই বিশ্লেষক।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. সায়মা হক বিদিশা জানান, করোনার প্রথম ধাক্কায় শ্রমজীবীরা সঞ্চয় ভেঙে, ধারদেনা বা পেশা বদলে করেছেন টিকে থাকার চেষ্টা। তবে দ্বিতীয় ধাক্কায় তাদের সে সুযোগও অবশিষ্ট নেই।

শ্রমিক সংগঠনগুলোর দাবি, করোনায় বৈশ্বিক মহামারিতে শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় সরকার, মালিকপক্ষসহ সবাইকেই আরো আন্তরিক হতে হবে।

#তমহ/বিবি/০১-০৫-২০২১

ক্যাটেগরী: অর্থনীতি

ট্যাগ: অর্থনীতি

অর্থনীতি ডেস্ক, বিবি শনি, মে ১, ২০২১ ৫:৫৬ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)