রইলো বাকি দুই...

রইলো বাকি দুই...

বসে গেছে ৩৯ নম্বর স্প্যান। রইলো বাকি দুই। মানে আর দুটি স্প্যান বসানো হলেই যুক্ত হয়ে যাবে পদ্মার দুই পার।
আজ শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ৩৮ নম্বর স্প্যান বসানোর ছয়দিনের মাথায় বসানো হলো ৩৯ নম্বর স্প্যান। এরফলে মূল সেতুর ৫ হাজার ৮৫০ মিটার দৃশ্যমান হল। ৪১টি স্প্যানের মধ্যে আর বাকি রইল দুটি স্প্যান। এই দুইটি স্প্যান বসানো হলেই পুরোপুরি দৃশ্যমান হবে পদ্মা সেতু।
শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ২-ডি স্প্যানটি ১০ ও ১১ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হয়। পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ আব্দুর কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে নভেম্বরেই সেতুটিতে মোট ৪টি স্প্যান বাসানো হলো।
আগামী ৬ বা ৭ ডিসেম্বর ১১ ও ১২ নম্বর খুঁটিতে ৪০তম স্প্যান হবে। পরবর্তী স্প্যান দুটি মাওয়া কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে প্রস্তুত আছে।
এর আগে, গত ২১ নভেম্বর মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের ১ ও ২ নম্বর পিলারে পদ্মা সেতুর ৩৮ নম্বর স্প্যান বসানো হয়। স্প্যানটি বসানোয় সেতুর ৫ হাজার ৭০০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছিল।
পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ আব্দুল কাদের জানান, ৩৮তম স্প্যান বসানোর ছয়দিনের মাথায় ৩৯তম স্প্যানটি বসানো হলো। এখন আর মাত্র দুইটি স্প্যান বসানো বাকি রইলো। ডিসেম্বর মাসে ১১ ও ১২ নম্বর পিলারে ৪০তম স্প্যান ‘২-ই’ ও ১২ ও ১৩ নম্বর পিলারে ৪১তম স্প্যান ‘২-এফ’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।
এদিকে, পদ্মা সেতু নির্মাণে প্রয়োজন হবে ২ হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাব। এর মধ্যে এখন পর্যন্ত বসানো হয়েছে ১ হাজার ৬৪৬টি। এ ছাড়া ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে। যার মধ্যে ১ হাজার ৮৪৮টি রেলওয়ে ওয়েস্ল্যাব বসানো হয়েছে।
২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্ট্রিল দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। পদ্মা সেতুতে ৪২টি পিলারের ওপর বসানো হবে ৪১টি স্প্যান। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সেতুর জাজিরা প্রান্তে ৩৭-৩৮ নম্বর পিয়ারে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে সেতু দৃশ্যমান হয়।
মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। সেতুর ওপরের অংশে যানবাহন ও নিচ দিয়ে চলবে ট্রেন।
তমহ/বিবি/২৭-১১-২০২০

ক্যাটেগরী: জাতীয়

ট্যাগ: জাতীয়

জাতীয় ডেস্ক, বিবি শুক্র, নভেম্বর ২৭, ২০২০ ৯:১৫ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)