ফুলে মন্দা কাটবে?

ফুলে মন্দা কাটবে?

করোনাভাইরাস আসায় ফুল থেকে দূরে থাকছে মানুষ। তাই ফুলের বাজারে চলছে মন্দা। মহামারি থাকলেও পয়লা ফাল্গুন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস ঘিরে ফুল ব্যবসা আবার ঘুরে দাঁড়াবে- এই আশায় সংশ্লিষ্টরা। তবে ফুল নিয়ে মানুষের আগ্রহ এখনো আগের চেয়ে কম। এ জন্য ফুলের ব্যবসা আগের মতো জমজমাট হয়নি। এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অন্যবারের চেয়ে এবার রাজধানীতে ফুলের বিক্রিও কম। এরইমধ্যে অবশ্য ফুলে ফুলে বর্ণিল হয়ে উঠেছে রাজধানীর শাহবাগ ও আগারগাঁওয়ের ফুলের বাজার।

ঋতুরাজ বসন্ত ও ভালবাসা দিবসে নানা বয়সের মানুষ সাজবে নানান রঙের ফুল দিয়ে। শুধু ফাগুন হাওয়ায় ভালোবাসায়ই নয়, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও এ মাসে। প্রতিবছর এ তিন দিন ফুল অন্যতম অনুষঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে উৎসবপ্রেমী বাঙালির জীবনে।

তাইতো এ দিন গুলোকে সামনে রেখে ফুলের কদর থাকে আকাশ ছোঁয়া। তবে মহামারি কারণে এবারের পরিস্থিতি ভিন্ন।

এর মধ্যেও পয়লা ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবসকে রঙিন করতে ভোররাত থেকে রাজধানীর পাইকারি ফুলের বাজারে শুরু হয় বেচাকেনা। পাইকাররা জানান, করোনা মহামারিতে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় ফুলের চাহিদা কম। তাই ব্যবসা মন্দা।

প্রতিটি গোলাপের পাইকারি দাম হচ্ছে সাত থেকে আট টাকা যা খুচরা গিয়ে পড়বে বিশটাকায়। আর গেলো বছর প্রতিটি গোলাপ ফুল ২৫ থেকে ৩০ টাকায় বিক্রি করতো খুচরা ব্যবসায়ীরা।

ফ্লালাওয়ারস সোসাইটির তথ্যমতে, সারাদেশের প্রায় ৩০ লাখ মানুষের জীবিকা এই ফুল আবাদ ও ব্যবসা কেন্দ্র করে। এরমধ্যে প্রায় ২০ হাজার কৃষক ফুল চাষের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

#তমহ/১৩-০২-২০২১

ক্যাটেগরী: ব্যবসা

ট্যাগ: ব্যবসা

ব্যবসা ডেস্ক, বিবি শনি, ফেব্রুয়ারী ১৩, ২০২১ ৭:০১ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)