বকুল তলায় নবম রসের মেলা

বকুল তলায় নবম রসের মেলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুল তলায় অনুষ্ঠিত হয় রঙ্গে ভরা বঙ্গের আয়োজনে নবম বারের মত রসের মেলা। খেজুর রসে গলা ভেজানোর পাশাপাশি মুড়ি-মুড়কি, গুড়-পাটালি ও রসের পিঠা খাওয়ায়ে আগত অতিথিদের আপ্যায়ন করা হয়। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মিলন পালাকারের পরিবেশনায় চলে কালু-গাজী ও চম্পাবতীর পালা।

আলপথে চলতে চলতে শিশিরে ভিজে যাওয়া পায়ের পাতা। সন্ধে হলেই গাছে গাছে বাঁধা হচ্ছে হাঁড়ি। সকাল হতে না হতেই খেজুর রসের চেনা স্বাদে মাতোয়ারা। বাড়ির উঠান বা ধান কেটে নেওয়া শূন্য মাঠে গোল হয়ে বসে সেই রস আস্বাদন-এ দৃশ্যগুলো অনেকেরই চেনা। তবে ইট-পাথরের এই নগরে এ দৃশ্যের দেখা মেলা কঠিন। 

কোথায় খেজুরের রস পাওয়া যায়? নগরে জেঁকে বসা শীতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাগরিকদের যেন স্লোগান হয়ে গেছে এই প্রশ্ন। ফেলে আসা গ্রামের স্মৃতিজাগানিয়া খেজুরের রসের স্বাদ নিতে যাঁরা ব্যাকুল ছিলেন, গতকাল শুক্রবার সকালটা ছিল তাঁদের জন্য। খেজুরের রসের সঙ্গে মুড়ি দিয়ে জমিয়ে সকালের নাশতা সেরেছেন তাঁরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের বকুলতলায়। আরও ছিল খই আর খেজুরের গুড়।

নবমবারের মতো সাংস্কৃতিক সংগঠন রঙ্গে ভরা বঙ্গ আয়োজন করে এ রস মেলার। রসের মেলা উদ্বোধন করেন শিল্পী আবুল বারক আলভী ও শাহাজাহান মৃধা বেনু। ছিলেন বাংলা একাডেমির ফোকলোর বিভাগের পরিচালক শাহিদা খাতুন ও ইউডার চারুকলা বিভাগের অধ্যাপক আলাউদ্দিন আহমেদ, চারুকলা অনুষদের ডিন শিল্পী নিসার হোসেন প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক হায়াৎ মামুদ।

রসের মেলায় আসা সবাইকে খেজুরের রস, খেজুরের গুড়, খই ও মুড়ি দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়। শুকনো পাতা দিয়ে তৈরি বাটিতে খেজুর গুড় ও খই-মুড়ি খেতে খেতে নানা রসবোধে মেতেছিলেন অনেকেই। তাঁদের সে রসবোধকে আরও মিঠে করে তোলে পোড়ামাটির গ্লাসে কুয়াশামাখা খেজুর রসের মিঠে স্বাদ। 
#এসএস/বিবি/১৭-০১-২০২০

রাজধানী ডেস্ক, বিবি শনি, জানুয়ারী ১৮, ২০২০ ১২:১১ পূর্বাহ্ন

Comments (Total 0)