বাংলাদেশ: উদীয়মান এক অর্থনৈতিক শক্তি

বাংলাদেশ: উদীয়মান এক অর্থনৈতিক শক্তি

স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে অর্থনীতিতে অগ্রগতির পথে আছে বাংলাদেশ। দক্ষিণ এশিয়ার উদীয়মান একটি অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে দাঁড়িয়েছে লাল-সবুজের এই দেশ।

বিশ্লেষণে দেখা যায়, মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) বিচারে বিশ্বের ৪১তম অর্থনীতির দেশ এখন বাংলাদেশ। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সবশেষ হিসাবে, অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন সূচকে ভারত, পাকিস্তানসহ অনেক দেশের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ।

ক্ষুধা নিবারণ সূচকে ৭৫তম।এ সূচকে ছাড়িয়ে গেছে ষষ্ঠ অর্থনীতির ভারতকেও। এই সূচকে দেশটি রয়েছে ৯৪ তম অবস্থান। এমনকি শিশু দারিদ্র্য নিরসণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে বাংলাদেশ থেকে শিক্ষা নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন দেশটির একজন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলে পাঁচ বছরেই পঞ্চম এশিয়ান টাইগার হবে বাংলাদেশ।

দেশি-বিদেশি সংস্থার গবেষণা বলছে, ডিজিটাল প্রযুক্তির বিকাশ, নারীর কর্মসংস্থানসহ নানা উদ্যোগ শক্তিশালী করছে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে।আর সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত মনে করেন, অর্থনীতির বদলে যাওয়া শুরু হয়েছে কৃষির মাধ্যমে। কৃষির বিকাশ ত্বরান্বিত করেছে শিল্প ও সেবা খাতের বিকাশ।

তবে করোনার ধাক্কায় দারিদ্র্য বেড়ে ৩০ শতাংশে পৌঁছেছে। যদিও দারিদ্র্যের হার নেমেছিল প্রায় বিশ শতাংশে।

করোনাকালেও রাজস্ব আয়ে প্রবৃদ্ধি, আমদানি-রপ্তানিতে গতি ও রেকর্ড পরিমান রেমিট্যান্সে আশার আলো দেখছে সরকার। অর্থমন্ত্রী আশা, শিগগিরিই হংকং, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ানের পরই পঞ্চম এশিয়ান টাইগার হবে বাংলাদেশ।

স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে যাওয়ার চূড়ান্ত যোগ্যতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। এখন লক্ষ্য টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে যাওয়া।

হাঁটিহাঁটি পা পা করে স্বাধীনতা অর্জনের ৫০টি বছর পার করছে বাংলাদেশ। আজ সেই মাহেন্দ্রক্ষণ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর। রূপকল্প ২০২১-এর এ বছরটি একটু ব্যতিক্রমী এ কারণে যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি।

#তমহ/বিবি/২৭-০৩-২০২১

ক্যাটেগরী: অর্থনীতি

ট্যাগ: অর্থনীতি

অর্থনীতি ডেস্ক, বিবি শনি, মার্চ ২৭, ২০২১ ৬:৪৫ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)