বনানীতে শেষঘুমে লতিফুর রহমান...

বনানীতে শেষঘুমে লতিফুর রহমান...

রাজধানীর বনানী কবরস্থানে ছোট মেয়ে শাজনীন তাসনিম রহমানের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান। বুধবার রাত ১০টায় তাঁকে সেখানে দাফন করা হয়। এর আগে রাত পৌনে ৯টার দিকে লতিফুর রহমানের মরদেহ তাঁর গুলশানের বাসায় নেওয়া হয়। 

লতিফুর রহমান বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চিওড়া ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের চিওড়া গ্রামের ফারাজ মঞ্জিলে মারা যান। এ খবর জানাজানি হলে তাঁর মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান ট্রান্সকম গ্রুপ, এসকেএফ এবং মিডিয়া স্টার লিমিটেডের কর্মীরা সেখানে উপস্থিত হন। বিকেল পাঁচটায় বাগানঘেরা বাড়ির পশ্চিম পাশে লতিফুর রহমানের মৃতদেহ গোসলের পর কাফনের কাপড় পরিয়ে তাঁকে আলিফ মেডিকেল সার্ভিসের লাশবাহী ফ্রিজিং গাড়িতে তোলেন পরিবারের সদস্যরা। বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয় লাশবাহী গাড়ি।

রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকায় পৌঁছানোর পর লতিফুর রহমানের মরদেহ নেওয়া হয় তাঁর গুলশানের বাসভবনে। সেখানে ২৫ মিনিটের মতো রাখা হয়। এরপর মরদেহ গুলশান আজাদ মসজিদে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানে জানাজা অনুষ্ঠিত হয় গুলশানের আজাদ মসজিদে। 

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানে জানাজা অনুষ্ঠিত হয় গুলশানের আজাদ মসজিদে। যারেফ আয়াত হোসেন। তিনি বলেন, ‘চার বছর আগে এই দিনে আমার ছোট ভাই ফারাজ আইয়াজ হোসেন মারা যান। একই দিনে বিদায় নিলেন আমাদের নানাভাই। তিনি একজন সৎ ও নীতিনিষ্ঠ ব্যবসায়ী ছিলেন। আপনারা তাঁর জন্য দোয়া করবেন।’

#এসকেএস/বিবি/২-০৭-২০২০

ক্যাটেগরী: জাতীয়

ট্যাগ: জাতীয়

জাতীয় ডেস্ক, বিবি বৃহঃ, জুলাই ২, ২০২০ ৪:৪৪ অপরাহ্ন

Comments (Total 0)