আজ সূর্যগ্রহণ

আজ সূর্যগ্রহণ

২৬ ডিসেম্বর সকালে শুরু হয় সূর্যগ্রহণ । তবে এটি পূর্ণ সূর্যগ্রহণ নয়। একে বিজ্ঞানীর ভাষায় বলা হয় রিং অব ফায়ার। বাংলাদেশে সকাল ৮টা ২৯ মিনিট ৫৩ সেকেন্ডে শুরু হয় সূর্যগ্রহণ। আমাদের দেশের আকাশে দুপুর ২টা ৫ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড পর্যন্ত দেখা যায়।

আবহাওয়া অধিদফতরের ওয়েবসাইটে বলা হয়, কেন্দ্রীয় সূর্যগ্রহণ শুরু হয়েছে সকাল ৯টা ৩৬ মিনিটে। শেষ হবে দুপুর ১২টা ৫৯ মিনিটে। সর্বোচ্চ গ্রহণ ১১টা ১৭ মিনিটে। কেন্দ্রীয় সূর্যগ্রহণ শেষ হবে ২টা ৫ মিনিটে।

জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর কর্তৃপক্ষ জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে জাদুঘরের ছাদে দুটি টেলিস্কোপের মাধ্যমে সূর্যগ্রহণ দেখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। দুপুর পর্যন্ত এই ব্যবস্থা থাকবে। এমনিতেই বাংলাদেশ থেকে আংশিক দেখতে পাওয়ার কথা। তবে আকাশ মেঘলা থাকলে দেখা কষ্টকর হবে।

যদিও সূর্যগ্রহণ খালি চোখে দেখা অত্যন্ত ক্ষতিকর। এছাড়া এক্স-রে ফিল্ম, নেগেটিভ, ভিডিও এবং অডিও ক্যাসেটের ফিতা, সানগ্লাস, ঘোলা বা রঙিন কাচেও সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি ও অবলোহিত রশ্মি আটকে না। তাই কোনোক্রমেই এগুলো দিয়ে সূর্যগ্রহণ দেখা উচিত নয়।

তবে ১৩ ও ১৪ গ্রেডের ওয়েল্ডিং গ্লাস বা আর্ক গ্লাস দিয়ে নিরাপদে সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণ করলে কোনো ক্ষতি হয় না । ১১ গ্রেডের ওয়েল্ডিং গ্লাস দিয়েও সূর্যগ্রহণ দেখা যায়। সেক্ষেত্রে দুটি গ্লাস একত্র করে তারপর দেখতে হয়। তবে কোনো ফিল্টার দিয়েই একনাগাড়ে বেশিক্ষণ সূর্যের দিকে তাকানো যাবে না। সোলার ফিল্টার ছাড়াও পিনহোল ক্যামেরা দিয়ে কোনো স্ক্রিনের ওপর সূর্যের প্রতিবিম্ব ফেলে সূর্যগ্রহণ দেখা যেতে পারে।

এদিকে এই সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণ করতে ক্যাম্পের আয়োজন করে আগারগাঁওয়ের জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর কর্তৃপক্ষ। প্রতিষ্ঠানটির একটি সূত্র জানায়, আজ সকাল থেকেই জাদুঘরের ছাদে দুটি টেলিস্কোপ দিয়ে এই সূর্যগ্রহণ দেখার ব্যবস্থা করা হয়।

#এসএস/বিবি/২৬-১২-২০১৯

ক্যাটেগরী: ফিচার

ট্যাগ: ফিচার

ফিচার ডেস্ক, বিবি শুক্র, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৯ ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন

Comments (Total 0)